-->

বাচ্চাদের সর্দি কাশির ঔষধের নাম

বাচ্চাদের সর্দি কাশির ঔষধের নাম

আমাদের বাচ্চারা অধিকাংশ সময় বিভিন্ন ধরনের সর্দি কাশিতে আক্রান্ত হয়ে থাকেন। অনেক সময় দেখা যায় মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে বিভিন্ন ধরনের এলার্জিক রাইনাইটিজনিত সমস্যা সর্দি-কাশি ঠান্ডা হাঁচি ইত্যাদি দেখা দেয়।

এছাড়াও অনেক ধরনের ভাইরাসের আক্রমণেও বাচ্চাদের সর্দি কাশি দেখা দিতে পারে। বাচ্চাদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তুলনামূলকভাবে কম হওয়ায় খুব সহজে এরা বিভিন্ন ধরনের রোগে আক্রান্ত হয়।

আজকের এই পোস্টে আমরা বাচ্চাদের সর্দি-কাশির বিভিন্ন ঔষধের নাম এবং এর কার্যকারিতা সম্পর্কে আলোচনা করেছি।

বাচ্চাদের সর্দি কাশির ঔষধের নাম

নিচে আমরা বাচ্চাদের সর্দি-কাশির বিভিন্ন ধরনের ঔষধের নাম তুলে ধরেছি। যেগুলোর সাহায্যে আপনারা আপনাদের বাচ্চাদের সর্দি কাশি ভালো করতে পারবেন। তবে অবশ্যই ওষুধ খাওয়ার আগে ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া উচিত।

  • Abex
  • Basok (Acme)
  • Ambrox
  • Madhuvas
  • Remocof
  • Adolef
  • E-cof
  • Mucosol

উপরের এই সমস্ত ঔষধ গুলো বাচ্চাদের সর্দি-কাশি এবং এলার্জিজনিত ঠান্ডা কাশি উপসর্গের চিকিৎসা হিসাবে ব্যবহৃত হয়।

বাচ্চাদের সর্দি কাশির সিরাপ স্কয়ার

স্কয়ার ফার্মাসিটিক্যালস লিমিটেড এর তৈরি বাচ্চাদের বিভিন্ন ধরনের সর্দি কাশির সিরাপ রয়েছে। 


  • Adovas - এটি বাজারে ১০০ এবং ২০০  মিলি বোতল হিসাবে পাওয়া যায়। এটি সাধারণত বুকের ভেতরে জমে থাকা কফ অপসারণ করে এবং শুকনো কাশি নিরাময়ে কাজ করে থাকে।
  • Ambrox - এই সিরাপটি বাচ্চাদের স্লেশমাযুক্ত কাশি, এজমা, সাইনুসাইটিস, নিউমোনিয়া ইত্যাদি রোগের চিকিৎসার ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়। এটি বাচ্চাদের স্লেশমাযুক্ত কাশি দূর করতে সাহায্য করে।

বাচ্চাদের শুকনো কাশির সিরাপ এর নাম

নিচে কয়েকটি জনপ্রিয় এবং ভাল বাচ্চাদের শুকনো কাশির সিরাপের নাম দেওয়া হলো। 


  • Honeybus - এই ওষুধটি বাচ্চাদের শুকনো কাশির চিকিৎসার কাজে ব্যবহৃত হয়। ১২ বছরের কম বয়সী বাচ্চাদের ক্ষেত্রে এক চামচ করে প্রতিদিন দুইবার খাওয়ানো যেতে পারে। 
  • Zerocof - জিরো কফ বাচ্চাদের শুকনো কাশির উপসর্গের চিকিৎসার জন্য ব্যবহার করা হয়। এটি বাজারে ১০০ এবং ২০০ মিলি বোতলে পাওয়া যায়। শুকনো কাশি ছাড়াও বিভিন্ন ধরনের ফুসফুসের সমস্যা এবং গলার স্বর ভাঙ্গা ঠিক করতেও এটি ব্যবহৃত হয়। 

বাচ্চাদের কাশির সিরাপ টোফেন

টোফেন সিরাপ আমাদের দেশে কাশির রোগের অনেক পরিচিত একটি ঔষধ। এই ওষুধটির মূল উপাদান বা জেনেরিক নাম হলো কিটোটিফেন ফিউমারেট।


টোফেন সিরাপ বিভিন্ন ধরনের এলার্জিজনিত ঠান্ডা কাশি এবং হাঁপানি রোগের চিকিৎসায় ব্যবহৃত হয়। এছাড়াও এতে বিভিন্ন ধরনের এলার্জিক রাইনাইটিস, নিউরোফাইব্রমাজনিত চুলকানি ইত্যাদি কাজে ও ব্যবহৃত হয়।


বাচ্চাদের ক্ষেত্রে এই ওষুধটি সাধারণত ৫ মিলি বা ১ মিলিগ্রাম করে দৈনিক দুইবার খাওয়ানো যেতে পারে।

বাচ্চাদের কাশির সিরাপ কোনটা ভালো

সব বাচ্চাদের সর্দি কাশির কারণ এক হয় না। অনেকের বিভিন্ন ধরনের এলার্জিক রাইনাইটিস জনিত সমস্যার কারণে সর্দি-কাশি দেখা দেয়। আবার অনেকের বিভিন্ন ধরনের মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে সর্দি কাশি ঠান্ডায় ইত্যাদি রোগ দেখা দেয়।


তাই বাচ্চাদের সর্দি কাশির সিরাপ কোনটি ভালো তা সরাসরি বলা মুশকিল। তবে স্কয়ার কোম্পানি সহ বিভিন্ন ধরনের ভালো কোম্পানির ঔষধ গুলো সকল বাচ্চাদের ক্ষেত্রেই ভালো। সঠিক এবং ভাল ঔষধটি রোগীর কন্ডিশন অনুযায়ী নির্ধারণ করা হয়।


বি:দ্র: তাই ঔষধ নেওয়ার আগে অবশ্যই ডাক্তারের শরণাপন্ন হতে হবে। তাহলে ডাক্তাররা রোগের কন্ডিশন এর উপর ভিত্তি করে ভালো ঔষধ দিবেন।

শেষকথা

আজকের এই পোস্টে আমরা বাচ্চাদের সর্দি-কাশির ঔষধ এর নাম, এদের ব্যবহার এবং এদের দাম সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করেছি। আপনারা যারা আমাদের এই পোস্টটি থেকে উপকৃত হয়েছেন তারা অবশ্যই আমাদের পোস্টটি শেয়ার করবেন।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url