-->

Monas 10 এর কাজ কি? ও খাওয়ার নিয়মসহ বিস্তারিত

Monas 10 এর কাজ কি

Monas 10 হচ্ছে একমি ল্যাবরেটরিজ লিমিটেডের মন্টিলুকাস্ট সোডিয়াম ১০ মি.গ্রা. একটি ট্যাবলেট। বাংলাদেশে এই ট্যাবলেটটি (Tablet) অনেক জনপ্রিয়।

Monas 10 এর কাজ কি

Monas ট্যাবলেট সাধারণত বাজারে বিভিন্ন আকারে পাওয়া যায়। যার মধ্যে রয়েছে ৪ মি.গ্রা. ট্যাবলেট, ৫ মি.গ্রা. ট্যাবলেট এবং ১০ মি.গ্রা. ট্যাবলেট।


অ্যাজমার আক্রমণ প্রতিরোধ, ব্যায়াম জনিত শ্বাসনালির সংকোচন, এলার্জিক রাইনাইটিস এর উপসর্গ এবং বিভিন্ন মৌসুমি অ্যালার্জি ইত্যাদির ঔষধ হিসেবে ব্যবহার করা হয়। নিচে monas 10 এর কাজ বিস্তারিত আলোচনা করা হলো: 


  • আ্যজমার আক্রমণ প্রতিরোধ এবং অ্যাজমার ক্রনিক চিকিৎসায় ব্যবহার করা হয়।
  • এলার্জিক রাইনাইটিস রোধ করে।
  • ঠান্ডা, কাশি ইত্যাদি সমস্যাতে সাময়িকভাবে monas ট্যাবলেট ব্যবহার করা হয়।
  • শ্বাসকষ্ট, খিচুনি সমস্যা দূর করতে ব্যবহার করা হয়। 

কাশির জন্য মোনাস ১০

আপনার যদি হাঁচি-কাশির মতো সমস্যা থেকে থাকে তাহলে আপনি মোনাস ১০ (Monas 10) গ্রহন করতে পারেন। তবে, খুব বেশি মাত্রায় কাশি দেখা দিয়ে আপনি ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে মোনাস ১০ সেবন করবেন। এতে করে এর যে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রয়েছে সেগুলো সম্পর্কে সচেতন থাকতে পারবেন।

মোনাস ১০ খাওয়ার নিয়ম

ইতিমধ্যেই আমরা মোনাস ট্যাবলেট এর বিভিন্ন কার্যক্ষমতা সম্পর্কে জেনেছি। আমরা নিচে মোনাস ১০ খাওয়ার নিয়ম বিস্তারিত আলোচনা করেছি।


  • বিভিন্ন এলার্জিজনিত ঠান্ডা, কাশি ইত্যাদি সমস্যা সমাধানে ডাক্তাররা ১০ থেকে ৩০ দিন এর ডোজ দিয়ে থাকেন।
  • আবার, আপনি চাইলে দুই বা একদিনের জন্যও এটি খেতে পারেন। তবে, তার আগে ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়াটা ভালো হবে।

শিশুদের ক্ষেত্রে মোনাস ট্যাবলেট খাওয়ানোর নিয়ম


  • ২ থেকে ৪ বছর বয়সী শিশুর জন্য দিনে একবার মোনাস ৪ মি.গ্রা. খাওয়ানো যেতে পারে। 
  • আবার ৫ থেকে ১৪ বছর বয়সী শিশুদের জন্য প্রতিদিন একবার ৫ মিলিগ্রাম মোনাস ট্যাবলেট খাওয়ানো যেতে পারে।

প্রাপ্তবয়স্কদের ক্ষেত্রে এই ট্যাবলেট খাওয়ানোর নিয়ম

বেশিরভাগ ক্ষেত্রে রাতে খাওয়ার পরে ভরা পেটে এই ট্যাবলেট খাওয়া ভালো। তবে খাওয়ার আগে ও পরে যেকোন সময়ে এই ট্যাবলেট খাওয়া যাবে। 

  • ১৫ বছর বা তার বেশি বয়স্ক ব্যক্তিদের জন্য মন্টিলুকাস্ট বা মোনাস ১০ মিলিগ্রাম ট্যাবলেট প্রতিদিন একবার খেতে হবে।

মোনাস ১০ কতদিন খেতে হয়?

মোনাস ১০ ট্যাবলেটটি কতদিন যাবৎ খেতে হবে তা নির্ভর করবে আপনার সমস্যার উপর।


  • বিভিন্ন মৌসুমী এলার্জিজনিত সমস্যা যেমন ঠান্ডা কাশি ইত্যাদির জন্য মোনাস ১০ ট্যাবলেট সাধারণত ১০ থেকে ৩০ দিন খেতে হয়। 
  • আপনার যদি এজমা বা হাঁপানিজনিত সমস্যা থাকে মোনাস ১০ ট্যাবলেট চলমান থাকবে। 

মোনাস ১০ কি এন্টিবায়োটিক?

না, মোনাস ১০ কোন এন্টিবায়োটিক ট্যাবলেট নয়। এটি সাধারণত বিভিন্ন ধরনের অ্যাজমা, হাঁপানি ও এলার্জিক রাইনাইটিস সমস্যার ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়।

মোনাস 10 এর দাম কত

মোনাস 10 ঔষধটি ক্রয় করতে চাচ্ছেন? কিন্তু এর দাম কত তা নিয়ে আপনার কোন ধারনা নেই। তাহলে দেখে নিন এর দাম।


  • মোনাস 10 ট্যাবলেট এর দাম ১৮ টাকা পিস
  • মোনাস 10 ট্যাবলেট এর ১ পাতার এর দাম ২৬৩ টাকা। (এক পাতায় ১৫ টি ট্যাবলেট রয়েছে)
  • তবে অনেক অনলাইন প্লাটফর্মে ১ পাতা মোনাস 10 ট্যাবলেট ২৩৭ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে। 

মোনাস ১০ এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া

মোনাস ১০ ওষুধটির কয়েক ধরনের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া রয়েছে। নিচে মোনাস ১০ এর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া গুলো তুলে ধরা হলো: 

মোনাস ১০ এর সাধারণ পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াসমূহ

  • মাথা ব্যাথা দেখা দিতে পারে
  • বমি বমি ভাব হতে পারে এমনকি বমিও হতে পারে
  • ত্বকের মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হতে পারে
  • পেটে বা পরিপাকতন্ত্রে অস্বস্তি দেখা দিতে পারে
  • ডায়রিয়া হতে পারে
  • জ্বর হতে পারে
  • এছাড়াও কিছু শ্বাসতন্ত্রের সংক্রমণ দেখা দিতে পারে

মোনাস ১০ এর অস্বাভাবিক কিছু পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াসমূহ


  • দুশ্চিন্তা বা উদাসীনতা দেখা দিতে পারে
  • স্নায়বিক বিভিন্ন যন্ত্রণা হতে পারে
  • পেশিতে যন্ত্রণা এবং পেশির দুর্বলতা দেখা দিতে পারে
  • বিভিন্ন ধরনের অস্বাভাবিক আচরণ হতাশা মুখ শুষ্কতা  ইত্যাদি দেখা দিতে পারে

বি:দ্র: ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া কোনো ঔষুধ খেলেও তা নিজ দায়িত্বে খাবেন। Nhaid Notes এ শুধু তথ্য দেওয়ার জন্য পোস্টটি পাবলিশ করা হয়েছে।
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url